মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন

লন্ডনের একটি স্কুলে ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হয়েছি: ভাবনা

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৮০ ভিউ টাইম

ভাবনা। অভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী ও মডেল। এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত নাটক ‘ঘুমন্ত শহরে’। এ ছাড়া বিভিন্ন চ্যানেলে তার বেশ কয়েকটি নাটক প্রচার হচ্ছে। সম্প্রতি পড়াশোনার জন্য লন্ডনে পাড়ি দিয়েছেন তিনি। সমসাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কথা হলো তার সঙ্গে-

হঠাৎ লন্ডনে গেলেন…

হুট করে নয়। পরিকল্পনা নিয়েই লন্ডনে এসেছি। এখানকার লন্ডন স্কুল অব কমার্সে একটি ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হয়েছি। এ মাসের ২৫ তারিখে দেশে আসব। তবে বছরখানেক লন্ডনে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকতে হবে।

বেশ কিছুদিন ধরে ‘ঘুমন্ত শহরে’ প্রচার হচ্ছে। নাটকে ‘রানী’ চরিত্রে অভিনয় করে আপনি কতটা তৃপ্ত?

রানী এই শহরে ঠিকানা খুঁজতে আসা এক মেয়ে। যার আশ্রয় হয়েছে পার্লারকর্মী নয়নতারা আর উকিল মিশার সংসারে। এই ত্রিভুজ বলয়ে চলতে থাকে গল্পের ঘোরপ্যাঁচ। এতে সংগ্রামী মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করছি। চরিত্রটি অনেক চ্যালেঞ্জিং। এই শহরে রানীর মতো শত শত মেয়ে আছে। তারা প্রতিনিয়ত এমন সংগ্রাম করে বেঁচে আছে। সত্যি বলতে যে নাটক মানুষের কথা বলে, তেমন গল্প ও চরিত্রে অভিনয় করতে আমার ভালো লাগে।

 

নতুন কোনো নাটকে যুক্ত হয়েছেন?

না, পড়াশোনার জন্য নতুন কোনো প্রজেক্টে যুক্ত হইনি। এসএ হক অলিকের ‘জায়গীর মাস্টার’, রোকেয়া প্রাচীর ‘সোনালী দিন’ ও অনিমেষ আইচের ‘জোছনাময়ী’ শিরোনামে ধারাবাহিকগুলোর শুটিংয়ে অংশ নেওয়ায় অন্য কোথাও সময় দেওয়া এ মুহূর্তে কঠিন।

চলচ্চিত্রে আবারও অভিনয় নিয়ে কিছু ভেবেছেন?

নতুন কোনো ছবিতে অভিনয় করতে গেলে অনেক প্রস্তুতির দরকার। তাড়াহুড়া করে কাজ করার ইচ্ছাও নেই। অভিনয়ের বিষয়ে আমার বাছ-বিচার ধরন একটু অদ্ভুত। যেটা আমার কাছে ভালো মনে হবে, সেটাই করতে চাই। ‘ভয়ংকর সুন্দর’ ছবিতে অভিনয় করেছিলাম এর গল্পটা অসম্ভব ভালো লেগেছিল বলে। বড় বাজেটের এই ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতাও ছিল অন্যরকম। চরিত্রেও অনেক ভাঙা-গড়ার বিষয় ছিল। এ ধরনের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেলে অবশ্যই করব।

শুনলাম সামনে একুশে গ্রন্থমেলায় আপনি বই প্রকাশ করবেন…

হ্যাঁ, বেশ কিছুদিন ধরে একটি উপন্যাস লেখায় সময় দিচ্ছি। এবারের গ্রন্থমেলায় উপন্যাস প্রকাশ করব। এ জন্য অবসরে বই লেখায় সময় দিতে হচ্ছে।

একজন শিল্পী কখন সার্থক হতে পারে বলে মনে করেন?

শিল্পী যখন নানা ধরনের চরিত্রে দর্শকের মনে আসন করে নিতে পারেন তখনই তিনি সার্থক। অভিনয় অনেকেই করেন। কিন্তু সবাই দর্শকের মনে ঠাঁই পান না। আমি ঠাঁই না পাওয়া শিল্পীদের দলে থাকতে চাই না। একজন প্রকৃত অভিনেত্রী হতে চাই। অন্যদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করব না। এখন প্রতিযোগিতা নিজের সঙ্গে। কারণ আমাকে নানা চরিত্রে অভিনয় করতে হবে। যার মধ্য দিয়ে নিজেকে একজন অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ পাব।

এখন পর্যন্ত অনেক চরিত্রে অভিনয় করেছেন। কিন্তু অদেখা চরিত্রগুলো পর্দায় ফুটিয়ে তোলেন কীভাবে?

অনেক চরিত্রই আছে, যেগুলো বাস্তবে কাছে থেকে দেখার সুযোগ হয়নি। তবে এমন চরিত্রে অভিনয় করতে হলে পুরোপুরি পরিচালকের নির্দেশ মেনে কাজ করি। কারণ নাট্যকার ও পরিচালক উভয়েরই গল্প, চরিত্র ও নির্মাণ নিয়ে এক ধরনের ভাবনা থাকে। তারা নাটক, টেলিছবি, চলচ্চিত্র যাই নির্মাণ করুন- এক ধরনের পরিকল্পনা নিয়েই তা শুরু করেন। যে জন্য তারা চরিত্রটি কীভাবে পর্দায় তুলে ধরতে চান- সেটা আগে জেনে নেওয়ার চেষ্টা করি।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরী আরো খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

Developed By VorerSokal.Com
newspapar2580417888