সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বগুড়া ঠনঠনিয়া বাসষ্ট্যান্ডে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়, ম্যাজিষ্টেটের জরিমানা : শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ বগুড়ায় বিপুল পরিমান সোয়াবিন তেল উদ্ধার বগুড়ায় ডিবির অভিযানে ২৫ কেজি গাঁজাসহ ৪ জন গ্রেফতার বেনাপোল সি এন্ড এফ এজেন্ট নির্বাচনে লড়ছেন সামাদ ভূয়া সংবাদ ও মানহানির প্রতিবাদে অষ্টগ্রামে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়ায় সন্ত্রাসী নীরবকে গ্রেফতার করেছে ডিবি বগুড়ায় ঈদের দিনে ভাতিজার হাতে চাচা খুন : গ্রেফতার ৫ অষ্টগ্রামে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফিং বগুড়ার চাঞ্চল্যকর সিহাব হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার বগুড়ায় চোরাই মটরসাইকেল সহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি

বগুড়ায় ঈদের দিনে ভাতিজার হাতে চাচা খুন : গ্রেফতার ৫

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ মে, ২০২২
  • ৭১ ভিউ টাইম

মিলন হোসেন / স্টাফ রিপোর্টার :

বগুড়ায় ৩ মে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে বগুড়া সদর উপজেলার বাঘোপাড়ার মহিষাবাতানে এই ঘটনাটি ঘটেছে।
নিহত আব্দুর রাজ্জাক একই এলাকার মৃত আব্দুল লতিফ সরকারের ছেলে।

জানা যায়, নিহত রাজ্জাক এর ছোট ভাই ওমর ফারুক সরকার এর ছেলে রুপম তার সাথে আরো কয়েকজন দুর্বৃত্তসহ এই হত্যাকান্ড ঘটায়। এক মাস আগে আব্দুর রাজ্জাক সরকারের মা মারা যান। মঙ্গলবার ঈদের দিন রাতে তিনি বগুড়া শহর থেকে একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা ভাড়া করে মহিষবাথান গ্রামে যান। সেখানে তিনি মায়ের কবর জিয়ারত শেষে মহিষবাথান বন্দরে দোকানে বসে চা পান করছিলেন। এমন সময় তার ভাতিজা ওমর খৈয়ম সরকার রোপনের নেতৃত্বে ১০–১২টি মোটরসাইকেল যোগে একদল সন্ত্রাসী তাকে ঘিরে ফেলে এবং তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপায়।

তিনি তার ব্যবহৃত লাইসেন্স করা পিস্তল দিয়ে গুলি ছুঁড়তে ছুঁড়তে পালানোর চেষ্টা করেন। দৌঁড়ে গিয়ে ত্রিমোহনীতে আব্দুর রাজ্জাক সরকার রাস্তায় পড়ে যান। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে ফেলে রেখে পালিয়ে যান। পুলিশ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ৩ ভাইয়ের সম্পত্তি বিষয়ক পারিবারিক শত্রুতার জেরে ঘটনা ঘটে। বগুড়া শহরের সুত্রাপুর এলাকায় ২৭ শতক একটি জায়গা ৩ ভাগ হবার কথা ছিলো। নিহত রাজ্জাক সরকার তা দীর্ঘদিন যাবত ভোগ–দখল করে আসছিলো এবং অন্য ভাইদের জায়গা দিতে অস্বীকার জানালে এমন ঘটনার স্বীকার হন নিহত রাজ্জাক।

সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদুল হক জানান, সন্ত্রাসীদের মধ্যে ভাতিজা ওমর খৈয়ম সরকার রোপন ও গুলিবিদ্ধ জনি ও আল আমিনকে আটক দেখানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশি পিস্তল ও বেশ কিছু গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত নিহতের পরিবার মামলা করেনি। লাশটি ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।

সদর থানা পুলিশ সূত্র জানায়, গ্রেফতার ৫ জন রাজ্জাক হত্যায় সরাসরি জড়িত। রাত ১টার দিকে মহিষাবাতান এলাকার নতুন হাট বাজারে রাজ্জাককে কুপিয়ে হত্যার পর একটি প্রাইভেট গাড়ি (ঢাকা মেট্রো–খ ১৫–৫৫৭২) চড়ে তারা শহরে আসেন। এসময় দত্তবাড়ী মোড়ে সদর থানা পুলিশের একটি দল গাড়িটির বেপরোয়া গতি দেখে থামিয়ে দেয়। সেখানে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জনি ও আমিনকে শজিমেক হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। গাড়ি তল্লাশি করে একটি বিদেশি পিস্তলসহ রুপম ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করা হয়।

বগুড়া সদর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, রুপম সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার সবার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে ইতিমধ্যে মামলা দায়ের হয়েছে।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরী আরো খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

Developed By VorerSokal.Com
newspapar2580417888