বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২০, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে ডিবির হাতে ১৪০ পিচ ইয়াবা সহ মাদক ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম আটক ! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু: ইউএনও’র হস্তক্ষেপে লাশের দাফন সম্পূন্ন । ঠাকুরগাঁওয়ে হাসপাতালে বিভিন্ন করোনা সরঞ্জামাদি প্রদান । ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল থানার ওসি হিসেবে যোগদান করলেন জাহিদ ইকবাল । র‌্যাব-১২ ও হুইল চেয়ার ক্রিকেট বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে সিরাজগঞ্জের বন্যার্ত মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ। বগুড়া সদর থানাধীন ফুলবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির বিশেষ অভিযানে ৫ জন গ্রেফতার। বগুড়া জেলার শ্রেষ্ঠ সার্কেল গাজিউর ও শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ শেরপুর থানার মিজানুর রহমান কাহালু থানা পুলিশের নতুন ডবল কেবিন পিকআপের চাবি হস্তান্তর করলেন পুলিশ সুপার মো.আলী আশরাফ ভূঞা ঠাকুরগাঁওয়ের হতদরিদ্র আলিয়া বেগমকে সেলাই মেশিন দিয়ে সহায়তা করেন – পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান, বোয়ালমারীতে মুক্তিযোদ্ধা লাঞ্ছিত থানায় মামলা

নড়াইলের সংসদ নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই টেকসই উন্নয়ন করতে উদ্যমী ক্রিকেটার মাশরাফী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৪২৫ ভিউ টাইম

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■ রবিবার (১৭, নভেম্বর) ২৭৪: নড়াইলের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই নড়াইলের উন্নয়নে দারুণ উদ্যমী মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। মাশরাফি বিন মুর্তজার আহবানে সাড়া দিয়ে সম্প্রতি বিশ্বখ্যাত কোম্পানি ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ইউনিলিভার বাংলাদেশ নড়াইল জেলার বিভিনś পাবলিক প্লেসে হাইজেনিক সুপেয় পানি সরবরাহের ব্যবস্থাসহ বিভিনś স্কুল ও কলেজের স্যানিটেশন ব্যবস্থার উনśয়ন এবং এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির উপর কাজ করবে। এই চুক্তির মূল লক্ষ্য, দেশের প্রথম হাইজেনিক (স্বাস্থ্যকর), হবে নড়াইল জেলা বাংলাদেশের একজন কিং ক্রিকেটার, তাই তিনি তার ব্যক্তিগত পরিচিতিকে কাজে লাগিয়ে সংসদ সদস্যের পাশাপাশি অন্য অনেককে স¤পৃক্ত করে নড়াইলের টেকসই উনśয়ন করতে নিজ উদ্যোগে কাজ করে চলেছেন। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উľ¡ল রায় জানান, এছাড়াও সচিবালয়ে তার পদচারণা দেখা যায় প্রায়ই। বিভিনś উনśয়ন প্রকল্প নিয়ে ছুটে বেড়ান মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রণালয়ে। নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ব্যস্তসময় কাটিয়েছেন সচিবালয়ের নানা কক্ষে। সারাদিনে তিনি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিদুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, পানিসম্পদ সচিব, আইন সচিব ও আইজি প্রিজন’র কার্যালয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিবগনের সাথে নড়াইলবাসীর উনśয়নের উদ্দেশ্যে সাক্ষাৎ করেন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি ও মাননীয় সচিব হেলালুদ্দীনের সঙ্গে মন্ত্রী মহোদয়ের কক্ষে সাক্ষাৎকালে সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা সদর উপজেলার মুলিয়া বাজার সংলগś পানতিটা ও ব্রাক্ষ্মনডাঙ্গা এলাকায় ব্রীজ নির্মাণের অগ্রগতি জানতে চাইলে মন্ত্রী মহোদয় প্রধান প্রকৌশলীর সাথে কথা বলেন ও দ্রুত কাজ শুরু করতে যা যা করণীয় তা করতে নির্দেশনা দেন। এছাড়া নড়াইল সদর ও লোহাগড়া উপজেলায় এডিপির বিশেষ বরাদ্দ দেয়ার দাবি জানালে সেটাও সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিতে দুজনেই প্রতিশ্রুতি দেন। এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুľামান খান কামালের কাছে লোহাগড়া উপজেলার নলদী ইউনিয়ে পুলিশ ফাড়ি নির্মাণের আবেদন জানালে মাননীয় মন্ত্রী পুলিশ মহাপরিদর্শক মহোদয়কে এবিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের কথা বলেন। এছাড়াও লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স স্টেশনকে তৃতীয় শ্রেণি থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উনśীতকরণের আবেদন করেন নড়াইল এক্সপ্রেস। নড়াইল সদর ও লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনকে অত্যাধুনিক মোটরসাইকেল দিবেন বলে স্বপ্রণোদিত হয়ে মন্ত্রী মহোদয় প্রতিশ্রুতি দেন। যে মোটরসাইকেলগুলো নড়াইল জেলার ওলিতেগলিতে ছোটখাটো আগুন নিভানোর জন্য দ্রুত সময়ে কাজ করতে সহায়ক হবে। সাক্ষাৎকালে পুলিশের মহাপরিদর্শক জাভেদ পাটোয়ারি উপস্থিত ছিলেন। তার সঙ্গেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন সংসদ সদস্য মাশরাফী মোর্ত্তজা। বিদুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপির নিকট গোটা নড়াইল জেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করতে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন করেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। এছাড়া, নড়াইল জেলার জন্য যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২, মনিরামপুরের স্থলে নড়াইল জেলায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সদর দপ্তর স্থাপনের বিষয়েও কথা বলেন তিনি। নড়াইল সদর পৌর এলাকায় ওজোপাডিকো বিদ্যুৎ সরবরাহ করেছে। কিন্তু এখনও পৌর এলাকা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসেনি। এবিষয়ে প্রতিমন্ত্রী মহোদয় ওজোপাডিকোর এমডি, খুলনাকে ফোন দিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে কঠোর নির্দেশনা দেন। যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএমকেও ফোন দিয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করেন এবং বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মহোদয়কে নড়াইলের উক্ত বিষয়গুলি দ্রুত বাস্তবায়নের কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। সাক্ষাতের পর বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু তার ভেরিভাইড ফেসবুকে পেজে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা এসেছিলেন জানিয়ে একটি পোস্ট করেন। যেখানে তিনি লিখেন “নড়াইলের সংসদ সদস্য মাশরাফী সারা দেশের তরুণদের আইকন। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েই বিভিনś মন্ত্রণালয়ে যাচ্ছেন তাঁর এলাকার সমস্যা সমাধানে। হঠাৎ দেখি আমার মন্ত্রণালয়ে নড়াইলের বিদ্যুৎ বিষয়ে কথা বলতে মাশরাফী চলে এসেছেন।” এরপর নড়াইল-২ আসনের সাংসদ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মহোদয়ের সাথে সাক্ষাতকালে তিনি জানান, লোহাগড়া উপজেলার ১৫টি, সদর উপজেলার ১৫টি ও কালিয়া উপজেলায় ১৫টি সর্বমোট ৪৫ টি বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণের কাজ দ্রুত শুরু হবে এবং তিনি নতুন করে যে ভবনগুলি করা দরকার তার একটি তালিকাও দিতে বলেছেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে। নড়াইলের বিভিনś এলাকার নদীভাঙ্গন সরেজমিন দেখার জন্য পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমকে অনুরোধ করেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। এতে উপমন্ত্রী মহোদয় নড়াইলে আসার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। এসময় নড়াইলের নদী ভাঙন রোধ ও সার্বিক বিষয়ে উপমন্ত্রী, পানিসম্পদ বিভাগের ডিজি ও নড়াইলের নির্বাহী প্রকৌশলীকে বিশেষ ভাবে অনুরোধ করেন। নতুন করে কোটাকোল ইউনিয়নের নদী ভাঙ্গন রোধে আরও তিনটি স্থানে কাজ শুরুর বিষয়ে গুরুত্ব দেন। সাংসদ মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও আইজি প্রিজনের সহিত সৌজন্য সাক্ষাৎকালে যে কোন প্রয়োজনে নড়াইলবাসীর পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন তিনি। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে গিয়ে নড়াইল জেলা, সদর ও লোহাগড়া উপজেলা প্রানিসম্পদ অফিসের শুন্য পদ ও প্রয়োজনীয় লজিস্টিকস দ্রুত সরবরাহের ব্যবস্থা নিতে বলেন। এসময় সচিব রইছ উল আলম মন্ডল মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে পেয়ে খুবই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন এবং বলেন, মাশরাফী আমাদের ১৭ কোটি মানুষের আবেগ। আমি ইনশাআল্লাহ মাশরাফীর নড়াইলের পাশে সবসময় আছি। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব কবির বিন আনোয়ার চিত্রা নদীর ২০ কি.মি খননের কাজ দ্বিতীয় ধাপে শুরু হবে বলে নিশ্চিত করেন ও এবিষয়ে ডিজি ও নির্বাহী প্রকৌশলীকে নির্দেশনা প্রদান করেন। এসময় আনোয়ার বলেন,”মাশরাফী আসলেই মনটা ভালো হয়ে যায়। তিনি নড়াইলের উনśয়ন বিষয়ে সাংসদ মাশরাফী মোর্ত্তজাকে বলেন “নড়াইলে নদী ভাঙ্গন রোধের কাজ চলছে, সেটি চলবে”। কাজ বন্ধ হবে না বলে তিনি সংশ্লিষ্টদের সকলের উপস্থিতিতে নির্দেশ দেন। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কয়েকটি নদী ভাঙনকবলিত এলাকায় ভাঙনরোধে ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদনের প্রেক্ষিতে সচিব মহোদয় আজ থেকেই ভাঙনরোধে কাজ শুরু করার নির্দেশনা প্রদান করেন। পরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব (ডিজি নার্স) এর সহিত সাক্ষাতে নড়াইল সদর হাসপাতাল ও লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক নার্স পদায়নের বিষয়ে কথা বলেন নড়াইল এক্সপ্রেস। তিনি দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়ে গেলে ওই মন্ত্রণালয়ের সম্মানিত সচিব কামরুন নাহার, নড়াইল জেলায় অতিসত্বর মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করার প্রয়োজনীয়ব্যবস্থা গ্রহনের কথা বলেন। বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ে মাননীয় মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক মহোদয় তার মন্ত্রণালয়ে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে দেখেই বলেন, “এই যে আমাদের রিয়েল হিরো চলে এসেছে”। তখন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা মাননীয় মন্ত্রীকে বলেন “আমি রিয়েল হিরো নই, আপনি হলেন বাংলাদেশের রিয়েল হিরো, একজন খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা। আপনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা।” কথোপকথনের এক পর্যায়ে নড়াইল জেলার টেক্সটাইল ভকেশনাল ইনস্টিটিউট ভবন নির্মাণের আবেদন করেন সাংসদ মাশরাফী মোর্ত্তজা। তখন এবিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন তিনি। এছাড়া,নড়াইলের উনśয়নের জন্য তার মন্ত্রণালয় থেকে যা যা করণীয় তা করবেন বলে জানান। এ বিষয়ে সৌমেন বসু জানান, একটা মানুষ কতোটা পরিশ্রম করছেন তার জেলার মানুষের জন্য। তিনি শুধু আবেদন করেই ক্ষান্ত থাকেন না, আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস আছে এগুলো তিনি বাস্তবায়নও করিয়ে নিয়ে আসবেন পূর্বের ন্যায়। একজন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা যেখানেই যান, সবাই তাকে কাছে পেয়ে কতোটা উচ্ছ্বসিত হন তা সামনে থেকে না দেখলে বোঝা যাবে না। আমরা নড়াইলবাসী সত্যি ধন্য যে, এই মাটিতে এমন এক সন্তানের জনĄ হয়েছে যিনি সকলের কাছে অনুকরণীয়, সকলের প্রিয়জন। যিনি মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হয়ে নড়াইলকে শ্রেষ্ঠ বাসস্থানে পরিণত করতে এভাবেই কাজ করে যাচ্ছেন। দ্বারে দ্বারে ঘুরে নড়াইলবাসীর ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য নিরন্তর ছুটে বেড়াচ্ছেন। অচিরেই তাঁর হাত ধরে আমরা আমাদের আকাঙ্খিত স্বপেśর নড়াইল গড়তে সক্ষম হবো। ওদিকে, মাশরাফি বিন মুর্তজার আহবানে সাড়া দিয়ে সম্প্রতি বিশ্বখ্যাত কোম্পানি ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের সঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ইউনিলিভার বাংলাদেশ নড়াইল জেলার বিভিনś পাবলিক প্লেসে হাইজেনিক পয়ঃনিষ্কাশন ও সুপেয় পানি সরবরাহের ব্যবস্থাসহ বিভিনś স্কুল ও কলেজের স্যানিটেশন ব্যবস্থার উনśয়ন এবং এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির উপর কাজ করবে। এই চুক্তির মূল লক্ষ্য হলো, নড়াইল হবে দেশের প্রথম হাইজেনিক (স্বাস্থ্যকর) জেলা। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উľ¡ল রায় জানান, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা নড়াইলের জনগণের কল্যাণে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন উল্লেখযোগ্য অনেকগুলি কাজ বাস্তবায়ন করেছে। যার সুফল ইতোমধ্যে ভোগ করছে নড়াইলের জনগণ। তিনি যখন এই ফাউন্ডেশন চালু করেন তখন তিনি সংসদ সদস্য ছিলেন না, বর্তমানে তিনি সাংসদ। এদিকে মাশরাফির জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক সৌমেন বসু বলেন, ‘সরকারের বাইরে বিভিনś দেশি-বিদেশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করে নিজ এলাকায় নানা উনśয়নমূলক কাজ করতে সংসদ সদস্যদের সচরাচর দেখা যায় না। তবে আমাদের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা যেহেতু বাংলাদেশের একজন কিং ক্রিকেটার, তাই তিনি তার ব্যক্তিগত পরিচিতিকে কাজে লাগিয়ে সংসদ সদস্যের পাশাপাশি অন্য অনেককে স¤পৃক্ত করে নড়াইলের টেকসই উনśয়ন করতে নিজ উদ্যোগে সামাজিক কাজ করে চলেছেন।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরী আরো খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

Developed By VorerSokal.Com
newspapar2580417888